শাকিব খানকে বয়কটের ঘোষণা পরিচালক সমিতির

Sharing

অন্যকন্ঠ: নায়িকা অপু বিশ্বাসের সঙ্গে প্রেম-বিয়ের লুকোছাপায় বিতর্কের পর গণমাধ্যমে নির্মাতাদের নিয়ে ‘কটূক্তি ও মানহানিকর’ বক্তব্যের অভিযোগে চলচ্চিত্র সংক্রান্ত সব কাজে শাকিব খানকে সাময়িক বয়কটের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি।

সোমবার বিকালে সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ ঘোষণা আসে।

এতে বলা হয়, সম্প্রতি শাকিব খান জাতীয় পত্রিকা ও মিডিয়াতে চলচ্চিত্র পরিচালকদের উদ্দেশ্য করে মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ায় সমিতির ভাবমূর্তি ও সদস্যদের সম্মান রক্ষায় কার্যনির্বাহী পরিষদের সিদ্ধান্তে তার বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

এর ‘সম্মানজনক’ সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত তাকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ সংক্রান্ত সব ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার জন্য চলচ্চিত্র নির্মাতাদের প্রতি অনুরোধ করা হয়েছে।

পরে বদিউল আলম খোকন বলেন, “শাকিব একের পর এক গণমাধ্যমে আমাদের নামে আজেবাজে কথা বলা যাচ্ছে। আমরাই শাকিবকে আজকের অবস্থানে এনেছি। শাকিব এখন আমাদের বিরুদ্ধেই কথা বলছে। আমাদের মানহানি হয়েছে। আমরা শাকিবকে নিয়ে আপাতত সিনেমা বানাচ্ছি না।”

নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকাকালীন সময়ে পরিচালকদের কেউ তাকে নিয়ে সিনেমা সংশ্লিষ্ট কোনো কাজ করলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবেও জানান বদিউল আলম খোকন।

চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের সঙ্গে প্রেম-বিয়ে ও সন্তানের বিষয়ে গোপনীয়তা বিষয়টি এপ্রিলের প্রথমার্ধে গণমাধ্যমের আলোচনায় আসার পর এক সাক্ষাৎকারে পরিচালকদের নিয়ে মন্তব্য করেন শাকিব খান।

এফডিসিতে অনেক পরিচালক কাজ না করে আড্ডা দেন বলে শাকিবের মন্তব্যে পরিচালক সমিতির ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানানোর পর এক সংবাদ সম্মেলনে শাকিব বলেছিলেন, “একটি দৈনিক পত্রিকায় সাক্ষাৎকার দিয়েছি। সেখানে আমি খারাপ কিছু বলিনি। আর এরকম কথা এর আগেও অনেকে বলেছেন। পরিচালক সমিতি শিল্পীকে উকিল নোটিশ দিতে পারে না।”

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি শাকিব খান ‘পেশীশক্তি’র প্রভাবে শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে পণ্ড করতে চাইছেন বলে চলচ্চিত্রপাড়ায় অভিযোগ রয়েছে।

এসব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে শাকিব বলেছেন, পরিচালক সমিতির সঙ্গে তার সুরাহা হয়ে গেলে ৫ মে শিল্পী সমিতির নির্বাচনটি অনুষ্ঠিত হবে।

Sharing