বিশ্ব শিক্ষক দিবস আজ

Sharing

আজ ৫ অক্টোবর ‘বিশ্ব শিক্ষক দিবস’। শিক্ষকদের অবদানকে স্মরণ করার জন্য
জাতিসংঘের অঙ্গসংস্থা ইউনেস্কোর সদস্যভুক্ত প্রতিটি দেশে ১৯৯৫ সাল থেকে
প্রতি বছর এদিনে দিবসটি উদযাপন করা হয়। শিক্ষকরা যাতে ভবিষ্যত প্রজন্মের
চাহিদা পূরণ করতে পারে তা নিশ্চিত করতেই দিবসটি পালন করা হয়।

১৯৯৩ সালে প্যারিসে অনুষ্ঠিত ইউনেস্কোর ২৬তম অনুষ্ঠানে ৫ অক্টোবর
দিনটিকে বিশ্ব শিক্ষক দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এরপর ১৯৯৪
সালে প্রথমবার দিবসটি পালন করা হয়। তবে ১৯৯৫ সাল থেকে বিভিন্ন দেশে
শিক্ষকরা মোটা দাগে ‘বিশ্ব শিক্ষক দিবস’ উদযাপন শুরু করেন। ইউনেস্কোর
অনুমোদনে প্রতিবছর পৃথক প্রতিপাদ্যে তা’ হয়ে আসছে।

ইউনেস্কোর মতে, শিক্ষা ও উন্নয়নে শিক্ষকরা বিশেষ ভূমিকা রাখছেন। মানুষের
মধ্যে সচেতনতা, উপলব্ধি সৃষ্টি ও শিক্ষকদের ভূমিকার স্বীকৃতিস্মারক হিসেবে
দিবসটি গুরুত্বপূর্ণ।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও নানা আয়োজনে আজ দিবসটি পালন করা
হবে। এ উপলক্ষে বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন আলোচনা সভা ও শোভাযাত্রাসহ নানা
কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে বিকেল সাড়ে ৩টায় বিশ্ব শিক্ষক দিবস
উদযাপনের জাতীয় পরিষদ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে শোভাযাত্রা বের করবে।
বিকেল ৪টায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে বিশ্ব শিক্ষক দিবস ২০১৮
উপলক্ষ্যে কৃতী শিক্ষকদের সম্মাননা প্রদান ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানের আয়োজন
করেছে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উদযাপনের জাতীয় পরিষদ। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম
প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এছাড়া আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় ঢাকা গোল্ডেন কলেজে এক মতবিনিময় সভা ও
বিশ্ব শিক্ষক দিবস ২০১৮ উপলক্ষে প্রকাশিত স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন
অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ অধ্যক্ষ পরিষদ ও বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক
সমিতি। একই সময়ে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আলোচনা সভার অায়োজন করেছে বাংলাদেশ
শিক্ষক সমিতি এবং সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ মিলনায়তনে শিক্ষা কর্মচারী
প্রতিনিধি সমাবেশের অয়োজন করা হয়েছে। টিচার্স ট্রেনিং কলেজের অনুষ্ঠানে
প্রধান অতিথি থাকবেন সাবেক শিক্ষা সচিব ও বঙ্গবন্ধু জাদুঘরের কিউরেটর মো.
নজরুল ইসলাম খান। কিছুক্ষণ পরে  সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটে
বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে স্বাধীনতা শিক্ষক
কর্মচারী ফেডারেশনের।

Sharing