আট ঘণ্টার বেশি কাজে বাড়ছে মৃত্যু ঝুঁকি!

Sharing

অন্যকন্ঠ: অফিস-আদালতে দিনের কতটুকু সময় কাজ করবেন তা অনেকটাই ঠিক করা রয়েছে। বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানই ২৪ ঘণ্টাকে ৮ নয়তো ৬ ঘণ্টায় ভাগ করে শিফটিংয়ে পরিচালিত হয়।

তবে, অনেকক্ষেত্রে সেই ৮ ঘণ্টা আর ৬ ঘণ্টা নির্ধারিত সীমানা পেরিয়ে ঠাঁই নেয় ১০ কিংবা ১২ ঘণ্টার ঘরে। প্রতিষ্ঠানের চাপে, বসকে খুশি করতে নয়তো সংসারে দুটি পয়সা বেশি আমদানি করতে খাটতে হয় অনেকের।

সে যাই হোক, সমীক্ষা বলছে অন্য কথা। যারা দিনে ৮ ঘণ্টার বেশি সময় অফিসে কাটান, তাদের জন্য ভবিষ্যতে অপেক্ষা করছে সমূহ বিপদ।

লন্ডন ইউনিভার্সিটি কলেজের অধ্যাপক মিকা কিভিমাকি পরিচালিত এক সমীক্ষা বলছে, দিনে ৮ ঘণ্টার বেশি কাজ করলে ত্বরান্বিত হবে মৃত্যু। ঘণ্টার নিরিখে কতটা সময় কাজ করলে তা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর হতে পারে, তা নিয়েই এ গবেষণা চালানো হয়।আট ঘণ্টার বেশি কাজে বাড়ছে মৃত্যু ঝুঁকি!

প্রায় ৬ লক্ষ মানুষের উপর সমীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে, যারা সপ্তাহে ৫৫ ঘণ্টা বা তার বেশি সময় কাজ করেন, তাদের মধ্যে স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। যারা সপ্তাহে ৩৫ থেকে ৪০ ঘণ্টা কাজ করেন, তাদের তুলনায় বেশি সময় কাজ করাদের স্ট্রোক ঝুঁকি বাড়ে ৩৩ ভাগ। এছাড়া হার্টের সমস্যায় ভোগার সম্ভাবনা বাড়ে ১৩ ভাগ।

গত ন বছর ধরে ইউরোপ, আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার ৬ লাখ ৩ হাজার ৮৩৮ জন পুরুষ ও মহিলা কর্মীর ওপর ২৫টি সমীক্ষা চালানো হয়। সেগুলোর সম্মিলিত ফলই এই অবস্থা প্রকাশ করেছে।

Sharing